শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৯:৫৩ অপরাহ্ন
নোটিশ:
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। * অফিসের ঠিকানাঃ জিএস ভবন, আলতাফুন্নেসা খেলার মাঠের পশ্চিমে, শেরপুর রোড, সাতমাথা, বগুড়া। মোবাইলঃ ০১৭১১ ৪২৭৩১৬ ইমেইলঃ jonotatv.com@gmail.com * এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।

১৫ আগস্ট খালেদা কী করবেন, অপেক্ষায় কামরুল

Reporter Name / ১৮ Time View
Update : শুক্রবার, ১৪ আগস্ট, ২০১৫

ঢাকা: ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ১৫ আগস্ট ভুয়া জন্মদিন পালন করবেন না জাতির কাছে ক্ষমা চাইবেন সেই অপেক্ষায় আছি।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমীর মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা জানান।

তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করার আবার ষড়যন্ত্র করছে। আগামীকাল ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস। এই শোক দিবসে প্রতিবছর বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ভুয়া জন্মদিন পালন করেন। তার আজকে লন্ডন যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু দেখলাম তিনি নাকি লন্ডন যাবেন না। কেন যাবেন না তা জানি না। তিনি কি ভিসা পাননি না অন্য কোনো কারণে। আসলে তিনি লন্ডন যেতে চান তার ছেলে তারেক রহমানের সঙ্গে নতুন কী ষড়যন্ত্র করা যায় সে বিষয়ে আলোচনা করতে।

মহানগরের এই নেতা বলেন, যারা নাশকতা করেছে তাদের প্রত্যেকের বিচার হবে। কোনো বিচার বন্ধ থাকবে না। যারা নাশকতা চালাতে মদদ দিয়েছেন, পরিকল্পনা করেছেন ও অর্থ যোগান দিয়েছেন প্রত্যেকের বিচার হবে।

তিনি বলেন, আমরাই বিশ্বজিৎ হত্যাকাণ্ডের বিচার করেছি। ৮ জনকে ফাঁসি দিয়েছি। আমরাই বিচারহীনতা থেকে বেরিয়ে এসে বিচারের সংস্কৃতি চালু করেছি। অথচ বিএনপির আমলেই বিচার হয়নি। তাদের সময় মিথ্যা তদন্ত হয়েছে। ফরমায়েশি বিচার হয়েছে।

বিএনপি নেত্রী ও তার ছেলে তারেক রহমান সম্পর্কে মায়া বলেন, জঙ্গি, আল কায়েদা বিচ্ছিন্ন কিছু নয়। সবই তাদের সৃষ্টি। তারাই আনসার উল্লাহ বাংলাটিমকে মদদ দিচ্ছেন।

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ১৫ আগস্ট যে হত্যাকাণ্ড হয়েছে তা একটি মানবতাবিরোধী অপরাধ। ইতিহাসকে কালিমামুক্ত করার জন্য শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার হয়েছে। যারা এই হত্যাকাণ্ডে অংশগ্রহণ করেছেন তাদের বিচার হয়েছে। যারা এই হত্যাকাণ্ডে মদদ দিয়েছেন এদেশে তাদেরও বিচার হবে।

ব্লগার হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, যারা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে শুধু তাদেরই নয়, যারা মদদ দিয়েছেন তাদেরও বিচার হবে।

সংগঠনের কার্যকরী সভাপতি ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমামের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির ভিসি ড. আবদুল মান্নান চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা বলরাম পোদ্দার, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, সংগঠনের সহ-সভাপতি ও অভিনেতা এটি এম শামসুজ্জামান, ড. ইনামুল হক, কবি রবীন্দ্র গোপ, সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা প্রমুখ।

 


এই বিভাগের আরো খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর